October 23, 2021, 9:43 am

জামিন পেলেন সাংবাদিক সেলিম হাসান কাওছার, মাথায় হাত আহাদের

নদী টিভি ডেস্ক

সাংবাদিক সেলিম হাসান কাওসারের জামিন হয়েছে। ব্যাগ ছিনিয়ে নেওয়া ও টিকটক ছেলেকে বলৎকারের মিথ্যা অভিযোগে কারাবন্ধী এ সাংবাদিক রোববার জামিন পেলেন। নুর মিয়া ওরফে আহাদের পরিকল্পনায় সাজানো তার এ সকল মামলার আলোচিত স্বাক্ষীগন হলেন, গোলাপগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আমিনুল ইসলাম রাবেল, কা্সউন্সিলর ফজলুল করিম, বেনামী, ভূয়া, সাংবাদিক নামধারী শহিদুল রহমান সুহেদ এবং নিজে।

মিথ্যা মামলায় কারাবন্দি দৈনিক সবুজ সিলেট-এর স্টাফ রিপোর্টার সেলিম হাসান কাওছার জামিন পেয়েছেন। গতকাল রোববার সিলেটের চীফ জুডিশিয়াল মাজিস্ট্রেট আদালতে গোলাপগঞ্জ সিআর ৩২৩/১৯ মামলায় জামিন আবেদন শুনানী শেষে বিচারক তার জামিন মঞ্জুর করেন। মামলায় কাওছারের পক্ষে শুনানী করেন এডভোকেট রনজিৎ সরকার ও এডভোকেট পুলিন দত্ত পিংকুসহ অন্য আইনজীবীরা।
২০১৯ সালে গোলাপগঞ্জ উপজেলার পূর্ব খদ্দাপাড়া গ্রামের খবির উদ্দিনের ছেলে নোমান মাহফুজ আদালতে হামলা ও ব্যাগ ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগে মামলা করেন। এ মামলায় তাকে গত ১৭ মে গ্রেফতার করা হয়।
এ মামলার নেপথ্যে গোলাপগঞ্জের সাংবাদিক নামধারী আবদুল আহাদ ওরফে নুর মিয়া। মামলায় স্বাক্ষীও আহাদ নিজে ও তার অনুসারী এবং স্বজনরা। মামলার স্বাক্ষীরা হলো আবদুল আহাদ, তার অনুসারী শহিদুর রহমান সুহেদ, আহাদের ভাতিজা এমরান আহমদ, আরেক ভাতিজা তানিম আহমদ ও জামায়াত নেতা আবদুল আজিজ।
মামলার বাদী নোমান মাহফুজ বলেন, আমি এ মামলা করতে চাইছিলাম না। আমি শিক্ষক মানুষ। আমি এসবে ভয় পাই। মূলত আহাদ ভাইসহ ২ জন এ মামলা করিয়েছেন। তারাই নেপথ্যে কাজ করছেন। এদিকে সাংবাদিক কাওসারের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফেইসবুকে অপ্সরী বুটিক পার্লারের হাসিনাকে নিয়ে পার্লার হাসিনা নামে পোস্ট করায় প্রবীন সাংবাদিক হেলাল আহমদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেছেন পার্লারের হাসিনা।

সূত্র: দৈনিক সবুজ সিলেট।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


লাইক দিন
%d bloggers like this: